করোনা মুক্ত হলেন সাংবাদিক নেতা ও সংগঠক মোঃ আলাল উদ্দিন ও তার স্ত্রী পুত্র

শামীম আহমেদ:
বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন ভৈরব পৌর শাখা ও নিরাপদ সড়ক চাই (নিসচা)’র ভৈরব শাখা এবং ভৈরব রিপোর্টার্স ক্লাব ও ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক ও ভৈরব অনলাইন নিউজ ক্লাবের সভাপতি এবং দৈনিক পূর্বকন্ঠ ও সাপ্তাহিক দিনেরগান পত্রিকার নির্বাহী সম্পাদক মোঃ আলাল উদ্দিন ও তার স্ত্রী ও পুত্র আদর সহ করোনা মুক্ত হয়েছেন। তবে তার কন্যার আবারো পজেটিভ এসেছে । মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর রাতে আলাল উদ্দিন নিজেই এ তথ্য জানান । তিনি গত ৫ সেপ্টেম্বর প্রথম জ্বরে আক্রান্ত হয়ে করোনার উপসর্গ দেখা দিলে এর পরদিনই তার নিজ বাড়ি থেকে করোনার সেম্পল নেন ভৈরব ট্রমা সেন্টারের চিকিৎসক।৭সেপ্টেম্বর স্বাস্থ্য দফতর থেকে জানানো হয়েছে তার করোনার রিপোর্ট পজিটিভ ।একই সাথে তার স্ত্রী ও , ছেলে ,আদরের শরীরেও করোনার উপসর্গ দেখা দিলে তারাও ট্রমা সেন্টারে গিয়ে করোনার নমুনা দিয়ে আসেন এবং পরদিন তাদেরও পজেটিভ আসে। এর ৪ দিনপর মেয়েরও করোনা উপসর্গ দেখা দিলে তারও নমুনা দিলে পরদিন তারও পজেটিভ আসে ।কিন্ত মেয়ের ১৬ দিন পর দ্বিতীয়বারের মতো নমুনা দিলে আবারো রিপোর্ট পজেটিভ আসে ।
সাংবাদিক আলাল উদ্দিন ও তার পরিবারের করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর ইতিমধ্যেই ভৈরবের বেশ কজন সাংবাদিক ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের সদস্য, নিরাপদ সড়ক চাই এর কেন্দ্রীয় সংগঠন এর শীর্ষ নেতাদের ফেসবুকে দোয়া চেয়ে স্ট্যাটাস দেয়। এছাড়া ও বেশ কটি দৈনিক ও সাপ্তাহিক পত্রিকা ও অনলাইন নিউজ পোর্টাল এবিষয়ে নিউজ প্রকাশিত হয়। সাংবাদিক মোঃ আলাল উদ্দিন সাংবাদিকতার পাশাপাশি দেশের জাতীয় সামাজিক সংগঠন নিরাপদ সড়ক চাই ভৈরব শাখার প্রতিষ্ঠাকালীন সাধারণ সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকরী কমিটির অন্যতম সদস্য । এছাড়াও বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন ভৈরব পৌর শাখার সাধারণ সম্পাদক । ভৈরব প্রথম আলো বন্ধুসভার উপদেষ্টা ও পিঠা উৎসব উদযাপন পরিষদের উপদেষ্টা । এবং বেশ কটি অনলাইন নিউজ পোর্টাল ও অনলাইন টিভিতে ভৈরব প্রতিনিধির দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে চিকিৎসকের পরামর্শে ভৈরব শহরের ভৈরবপুর উঃপাড়ার তার নিজ বাড়িতেই আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিয়েছেন। তিনি ২১ দিন পর দ্বিতীয় দফায় নমুনা পরীক্ষা করা হলে আজ স্বাস্থ্য বিভাগ থেকে জানানো হয় যে। তিনজনের নেগেটিভ এবং মেয়ের পজেটিভ এসেছে । সাংবাদিক আলাল উদ্দিন জানান তিনি ও তাঁর পরিবারের লোকজন করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে সুস্থ হওয়া পর্যন্ত উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভিন্ন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ,রফিকুল ইসলাম মহিলা কলেজ,কর্তৃপক্ষ কলেজের বর্তমান ও প্রাক্তন ছাত্রী এবং তাদের অভিভাবক, দৈনিক পূর্বকন্ঠ পরিবার, নিরাপদ সড়ক চাই ভৈরব শাখার সহ কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ, বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন এর সদস্যরা, প্রথম আলো বন্ধুসভার অনেক বন্ধু , সাপ্তাহিক অবলম্বন পত্রিকার পরিবার, অনলাইন নিউজ পোর্টাল SAnews24bd.com এর পরিবার, ভৈরব উপজেলা মাদক বিরোধী সংগঠন এর সদস্যরা, ভৈরব ও ঢাকার বেশ কজন স্বনামধন্য চিকিৎসক, ব্যাচ ৮২ বন্ধুগণ, ভৈরবের বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ,বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, সহ দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে বিশিষ্ট ব্যক্তি ও প্রবাসী আত্নীয়স্বজন অনেকেই খোঁজ খবর নিয়েছেন দোয়া করেছেন,এ কারনে কোন ভয় না করে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী করোনা যুদ্ধে আমি সহ আমার স্ত্রী ও পুত্র বিজয় লাভ করলেও মেয়ে এ যুদ্ধে হেরে গেলেন । মোঃ আলাল উদ্দিন করোনা মুক্ত হয়ে মহান আল্লাহ তায়ালার নিকট শুকরিয়া আদায় করেন । এবং করোনা কালীন সময়ে যারা খোঁজ খবর নিয়েছেন ফোন করেছেন ও দোয়া করেছেন এবং সহযোগিতা করেছেন তাদের প্রতি বিশেষ কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।তিনি সহ তার স্ত্রী ও পুত্রের প্রতি এবং বিশেষ করে তার মেয়ের জন্য দোয়া চেয়ে সবাই কে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার অনুরোধ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »