কী এক ঝামেলাতেই না পড়লেন তামিম ইকবাল মুশফিক না মাশরাফি, কাকে বাঁচাবেন

অনলাইন ক্রীড়াঙ্গন নিউজ ডেক্স:

তাঁর নিজের লাইভ শো, এর মধ্যে বাংলাদেশ ওপেনারকে প্যাঁচে ফেলে দিলেন মাহমুদউল্লাহ।কী এক ঝামেলাতেই না পড়লেন তামিম ইকবাল! দুই পছন্দের মানুষের মধ্যে একজন বেছে নিতে হলে কে-ই বা স্বচ্ছন্দ হবে?

কোভিড-১৯ করোনাভাইরাসের এই সময়ে ভক্তদের পাশে থাকতে একের পর এক লাইভ সেশন করে যাচ্ছেন তামিম ইকবাল। তার শেষ ধাপে আজ চেয়েছিলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ ও সাকিব আল হাসানকে একসঙ্গে আনতে। ব্যক্তিগত কাজে সাকিব আসতে না পারায় পঞ্চপান্ডব পূর্ণ হয়নি। তবে এই চারজনেরই আড্ডাটা হয়েছে অনেক প্রাণবন্ত। সতীর্থ পরিচয় ছাপিয়েও তাঁরা যে কত কাছের বন্ধু, সেটিই প্রমাণিত হয়েছে আরেকবার।
বন্ধুত্বের আবেশেই হঠাৎ গ্যাড়াকলে পড়ে গেলেন তামিম। হঠাৎ তামিমকেই প্রশ্ন করা হলো, বাংলাদেশ দলে তাঁর সবচেয়ে প্রিয় বন্ধু কে, সেই নামটি বলতে। তামিম প্রথমে উত্তর দিলেন, ‘মুশফিক আছে। মাশরাফি ভাইরা আছেন। সাকিব আছে…।’
কিন্তু এই পর্যায়ে আবার মাহমুদউল্লাহর দিক থেকে চাপ এল, এত নাম নয়, কোনো একটি নাম বেছে নিতে হবে! তামিম যাতে তা করেন, সেটি নিশ্চিত করতেই মাহমুদউল্লাহ আরও কঠিন এক প্রশ্ন করে বসলেন। প্রশ্নটা এই, ‘একটা নৌকায় দুজন আছে—মাশরাফি ভাই আর মুশি (মুশফিক)। একজনকেই বাঁচাতে পারবি। কাকে বাঁচাবি?’ কদিন আগে তাসকিন আহমেদ আর রুবেল হোসেনের সঙ্গে আলাপে একই ধরণের প্রশ্ন করে তাঁদের বিপাকে ফেলেছিলেন তামিম। মাহমুদউল্লাহ না মাশরাফি – কাকে বাঁচাবেন রুবেল-তাসকিন, এই ছিল সেদিন তামিমের প্রশ্ন। এবার মাহমুদউল্লাহ যেন পাল্টা নিলেন!
কী উত্তর দেবেন তামিম? কিছুক্ষণ সময় নিয়ে বললেন, ‘যদি মাশরাফি ভাইর নাম না বলি মানুষ গালি দিবে…।’ এই পর্যায়ে আবার মাহমুদউল্লাহর চাপ, কোনো একজনকে বেছে নিতে হবে। তাতে তামিমের উত্তর, ‘মুশফিক।’
অনূর্ধ্ব-১৯ পর্যায় থেকেই যাঁর সঙ্গে বন্ধুত্ব, সেই মুশফিকের একটা আলাদা আবেদন তো থাকতেই পারে!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »