টেকনাফে রোহিঙ্গা শিক্ষকের হাতে ৯ বছরের শিশু ছাত্রী ধর্ষণ লম্পট শিক্ষক আটক

মোঃ জহির মিয়া, কক্সবাজার প্রতিনিধি ॥
টেকনাফে রোহিঙ্গা শিক্ষকের হাতে ৯ বছরের শিশু ছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে বাহারছড়া উত্তর শিলখালী আলহেরা ইবতেদায়ী নুরানি মাদ্রাসার ভেতরে এ ঘটনা ঘটে। ধর্ষনের শিকার শিশুটিকে মূমূর্ষ অবস্থায় ভর্তি করা হয়েছে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে। পুলিশ অভিযুক্ত মাদ্রাসার শিক্ষককে বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেফতার করেছে।

জানা যায়, টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়া উত্তর শিলখালী আলহেরা ইবতেদায়ী নুরানি মাদ্রাসায় রোহিঙ্গা শিক্ষক মৌলবি নুরুল হক বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টায় ঐ মাদ্রাসার ৪র্থ শ্রেণীর শিশু শিক্ষার্থীকে ধর্ষণ করে। লম্পট রোহিঙ্গা শিক্ষক কর্তৃক ধর্ষিত হয়ে রক্তাক্ত অবস্থায় শিশুটি বাড়িতে ফিরে অসহ্য যন্ত্রণায় কাতর হয়ে পড়ে। কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে তার মাকে ঘটনাটি জানায়। ধর্ষণের শিকার শিশুটির পিতা জানান, বিকেলে রক্তাক্ত অবস্থায় তার মেয়ে মাদ্রাসা থেকে বাসায় এসে জানায় মৌলবি নুরুল হক তাকে একটি শ্রেণী কক্ষে নিয়ে ধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। প্রচুর রক্তকরণ হলে তাকে মুমূর্ষু অবস্থায় কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কক্সবাজার সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডা: নওশাদ রিয়াদ জানান, মুমূর্ষ অবস্থায় শিশুটিকে হাসপাতালে আনা হয়। তার প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়েছে। বর্তমানে তাকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। টেকনাফ থানার ওসি হাফিজুর রহমান জানিয়েছেন রাত ৯টায় অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করা হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »