বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডের ভেতরেই নৈশপ্রহরীকে শাবল দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয়

আশুগঞ্জ (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জ উপজেলায় বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট ব্যাংক লিমিটেডের ভেতর নৈশপ্রহরী রাজেশ বিশ্বাসকে (২৩) হত্যার ঘটনায় রহস্য উদঘাটন করেছে পুলিশ। ডাকাতি করার উদ্দেশে তাকে শাবল ও রেঞ্চ দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করা হয় বলে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানিয়েছেন।

শনিবার রাতে আশুগঞ্জে ব্যাংকটির শাখা থেকে তার হাত, পা ও মুখ বাঁধা রক্তাক্ত লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। নিহত রাজেশ সিলেটের জকিগঞ্জ উপজেলার চান্দপুর এলাকার ক্ষিরোদ বিশ্বাসের ছেলে।

এ ঘটনায় পুলিশ জামাল হোসেন ওরফে মাসুদ (২৪), জামিল (২৮), মাসুম কবির (৩৮) ও সাদ্দাম হোসেন (২৭) নামের চারজনকে গ্রেফতার করেছে।

এ বিষয়ে বুধবার সকালে বিস্তারিত জানাতে ব্রাহ্মণবাড়িয়া পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান জানান, আমরা প্রাথমিকভাবে ক্রাইমসিন পর্যালোচনা করি। এ সময় হত্যাকারী একটি ল্যাপটপ ও দুইটি মোবাইল নিয়ে যায়। চারজনকে শনাক্ত করে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে আটক করা হয়েছে। এর মধ্যে সিনিয়র জুডিশিয়াল আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে এ ঘটনার মাস্টারমাইন্ড জামাল হোসেন ওরফে মাসুদ। গ্রেফতার মাসুদ ঘটনার সঙ্গে চারজন ছাড়াও কয়েকজনের নাম প্রকাশ করেছে।

তিনি বলেন, হত্যাকারীরা ব্যাংকের টাকা লুটপাট করতে পরিকল্পনা করেছিল। এ ঘটনার আগে হত্যাকারীরা ব্যাংকের আশপাশ এলাকা র‌্যাকি করে। একটি জানালা প্রায় অরক্ষিত ছিল। জানালার গ্রিল কেটে ব্যাংকের ভেতরে ৪ জন ঢুকে, একজন বাইরে পাহারারত থাকে। ব্যাংকে ঢোকার পর কিছু সময় অবস্থান করার পর তারা সিসি ক্যামেরা অচল করে দেয়। এরপর ব্যাংকের ভেতরে রাজেশ বিশ্বাসকে তাদের হাতে থাকা শাবল ও রেঞ্চ দিয়ে উপর্যুপরি আঘাত করে হত্যা করে।
সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ ও প্রশাসন) রহিজ উদ্দিন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর দফতর) আবু সাঈদ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোজাম্মেল হোসেন রেজা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর) মকবুল হোসাইন, সহকারী পুলিশ সুপার (বিশেষ শাখা) আলাউদ্দিন চৌধুরী, সহকারী পুলিশ সুপার (সরাইল) আনিছুর রহমান, ডিআইও-১সহ জেলার সব থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তারা (ওসি) উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »