বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মহিলাসহ ৪ মানবপাচারকারী আটক

শামীম আহমেদ:
লিবিয়ার মিজদা শহরে নৃশংসভাবে ২৬ বাংলাদেশি হত্যার ঘটনায় কিশোরগঞ্জের ভৈরবে থেকে মহিলাসহ চার মানব পাচারকারীকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব)। আজ বুধবার (৩ জুন) দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে র‌্যাব-১৪ এর সিও লে. কর্নেল এফতেখার উদ্দিন এসব তথ্য জানান। সংবাদ সম্মেলনে ভৈরব ক্যাম্পের অধিনায়ক রফিউদ্দীন মোহাম্মদ, উপ-অধিনায়ক চন্দন দেবনাথসহ র‌্যাবের উধ্বর্তন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় লে.কর্নেল এফতেখার উদ্দিন গনমাধ্যমকে জানান,লিবিয়ার মিজদা শহরে নৃশংসভাবে ২৬ বাংলাদেশি হত্যার ঘটনায় কিশোরগঞ্জের ভৈরবের ৬ জন নিহত ও ৩ জন গুরুত্বর আহত হয়। এদের মধ্যে নিহত মোহাম্মদ আলী ও মাহবুব এবং আহত জানু মিয়া মানবপাচারকারী মো.হেলাল মিয়া ও মো. খবির উদ্দিনের মাধ্যমে অবৈধভাবে প্রতিজন তিন লাখ টাকা দিয়ে লিবিয়া যান।

নিহত সাকিব, আকাশ, শাকিল এবং আহত সোহাগ দালাল তানজিল (বর্তমানে লিবিয়ায়), নাজমুল (তানজিলের ভাতিজা), জুবুর আলী এবং মিন্টু মিয়ার মাধ্যমে প্রতিজন চার লাখ টাকার চুক্তিতে অবৈধভাবে লিবিয়া যান। নিহত রাজন চন্দ্র দাস কুখ্যাত দালাল জাফর ও তার স্ত্রী মুন্নি আক্তার রুপসী, মানিক, হিরা এবং শহিদ মিয়ার মাধ্যমে ৪ লাখ টাকা দিয়ে অবৈধভাবে লিবিয়া যান।

মানিক ও জাফর লিবিয়ায় থেকে মানবপাচারে নেতৃত্ব দেন এবং বাংলাদেশে তাদের হয়ে লোক সংগ্রহ করা, আর্থিক লেনদেনসহ যাবতীয় কাজ পরিচালনা করতেন শহিদ মিয়া, হিরা, মুন্নি আক্তার রুপসী এবং হযরত আলী। বাংলাদেশে তানজিলের মানবপাচার কারবার পরিচালনা করতেন তার ভাতিজা নাজমুল, জুবুর আলী এবং মিন্টু মিয়া।

এর আগে,কিশোরগঞ্জের ভৈরব উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে মানবপাচারকারী ৪ জনকে আটক করে র‍্যাব-১৪, সিপিসি-৩, ভৈরব ক্যাম্প।

আটককৃতরা হলেন- উপজেলার শম্ভুপুর এলাকার মৃত আব্দুল আহাদ মিয়ার ছেলে হেলাল মিয়া ওরফে হেলু (৪৫), তাতারকান্দি এলাকার মৃত আব্দুর রশিদের ছেলে খবির উদ্দিন (৪২), লক্ষীপুর এলাকার মৃত সুরুজ মিয়া সরকারের ছেলে শহিদ মিয়া (৬১) ও শম্ভুপুর এলাকার জাফরের স্ত্রী মুন্নি আক্তার রুপসী (২৫)।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিভিন্ন সময় ও বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে লিবিয়ায় ভৈরবের বাসিন্দা হত্যার ঘটনা ও মানবপাচার সংশ্লিষ্ট থাকায় তাদের আটক করা হয়। আটকদের কাছ থেকে গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে। বিষয়টি নিয়ে র‌্যাব মাঠে কাজ করছে।

আটককৃতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »