ভৈরবে আগানগর ইউনিয়নে পানিতে ডুবে দুই শিশুর মৃত্যু

স্টাফ রিপোটার:
ভৈরবের আগানগর ইউনিয়নের দুই গ্রামে খলাপাড়া ও লুনদিয়া এলাকায় পৃথক ঘটনায় পানিতে ডুবে দুই শিশুর মুত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন উপজেলার খলাপাড়ার এলাকার মো: হাকিম মিয়ার পুত মোস্তাকিম ( ৪ ) ও একই ইউনিয়নের লুনদিয়ার গ্রামের কাদের গনি মেয়ে আয়েশা বেগম (৩)।
জানাযায়, খলাপাড়ার এলাকার মো: হাকিম মিয়ার পুত শিশু মোস্তাকিম ( ৪ ) বাড়ী পাশে হাত্তরের পানিতে পড়ে নিখোঁজ হয় গত মঙ্গলবার দুপুরে। অনেক খুজাঁখুজির পর শিশুটিকে পাওয়া যায়নি। হাত্তর ও মেঘনায় এলাকাবাসী জাল ফেলে কোনো কিছুতেই শিশুটিকে উদ্ধার করতে পারেনি।
ঘটনারএকদিন পর বুধবার ফায়ার সার্ভিস কে বিষয়টি জানানোর পর ভৈরব ফায়ার সার্ভিস ঘটনা স্থল পরিদর্শন করে কিশোরগঞ্জ জেলা ফায়ার সার্ভিস কে খবর দেত্তয়ার পর দুপুর ১২টার পর ৫ সদস্যর একটি ডুবুরী দল ঘটনা স্থলে পৌছে উদ্ধার তৎপরতা শুরু। ঐ দিন সন্ধ্যা পর্যন্ত চেষ্টা করে খোঁজ না পেয়ে তারা উদ্ধার তৎপরতা বন্ধ করে দেয়। ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দলের উদ্ধার তৎপরতা চেষ্টায় কোন কাজে আসেনী। খোঁজ মেলেনি নিখোজ শিশুর। ঐ দিনেই ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরী দলের ফিরে যায়।
স্থানীয় ভাবে এলাকাবাসী গত চার দিন ধরে উদ্ধার তৎপরতা চালাতে থাকে। শনিবার সকাল ১১টার পর সে খলাপাড়ার চরপাড়া এলাকায় শিশু মোস্তাকিমের লাশ ভেসে ওঠে। এ খবর যানাযানি হলে গ্রামে শোকের ছায়া নেমে আসে, কান্নায় ভাড়ী হয়ে উঠে ওইবাড়ীর বাতাস। ঘটনার পর থেকে স্বজনদের মাঝে এক হৃদয় বিদারক ঘটনার অবতারনা হয়।
অন্যদিকে উপজেলার একই ইউনিয়নের লুনদিয়ার গ্রামের কাদের গনি মেয়ে আয়েশা বেগম (৩) পানিতে ডুবে মারা যায় গত শুক্রবার।
গ্রামের ইউপি সদস্য ফারুক মিয়া ও পরিবারের সদস্যরা জানায় শুক্রবার দুপুরের পর কোন এক ফাঁকে শিশু আয়েসা বেগম বাড়ির পাশের বর্ষার পানিতে পড়ে যায় । লোকজন বাড়ীর চারি দিকে পানিতে নেমে এবং জাল দিয়ে খোজা খোজি শুরু করে। শুক্রবার সন্ধ্যায় আয়েসার মরদেহ বাড়ির পাশে পানিতে ভেসে ওঠে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »