ভৈরবে বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শন ও নিরাপত্তা বিষয়ক মতবিনিময় করেন থানার অফিসার ইনচার্জ মো.শাহিন

রাফিজুল হাসান সানজীব :
আসন্ন শারদীয় দূর্গাপূজা উপলক্ষ্যে ভৈরবের বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেছে ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো.শাহিন। তিনি সোমবার ১৯ অক্টোবর দুপুর দেড়টা থেকে শহরের ভৈরব বাজারস্থ শ্রী শ্রী গোপাল জিউর মন্দির (গোপালবাড়ি মন্দির), কালীবাড়ি মন্দির, ঋষিপট্টি পূজামন্ডপসহ পলতাকান্দা এলাকার বিভিন্ন পূজামন্ডপ পরিদর্শন করেন।

পরিদর্শনকালে তিনি মন্দির ও মন্ডপ পরিচালনা কমিটির নেতাদের সাথে তাদের নিজস্ব নিরাপত্তা ব্যবস্থা, সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে মতবিনিময় করেন। মতবিনিময়কালে তিনি আইন শৃংখলা রাবাহিনীর নিরাপত্তা বলয় সম্পর্কে মন্দির ও মন্ডপ কর্তৃপকে অবহিত করেন। এ সময় তিনি মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে সামাজিক দরত্ব বজায় রেখে এই ধর্মীয় অনুষ্ঠানটি পালন করতে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানান।

সনাতন ধর্মাবলম্বীদের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গোৎসব আগামী ২২ অক্টোবর বৃহস্পতিবার ষষ্ঠি পূজার মধ্য দিয়ে শুরু হবে। মহামারি করোনাভাইরাসের কারণে সামাজিক সব উৎসব বাদ দিয়ে সীমিত আকারে শুধু ধর্মীয় আচার পালনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ওইদিন শ্রী শ্রী শারদীয় দূর্গাদেবীর ষষ্ঠাদি কল্পারম্ভ, বোধন ও আমন্ত্রণ এবং অধিবাসের মধ্যদিয়ে পূঁজার আনুষ্ঠানিকতা শুরু হবে। ঢাক-ঢোল, শাখ, শঙ্খ,কাসা, মৃদঙ্গ বাজিয়ে ও আরতি করে পূজা অর্চনার মাধ্যমে ভক্তপ্রাণ হিন্দু নর-নারীরা দূর্গা মাকে বরণ করে নিবেন।

২৬ অক্টোবর সোমবার বিজয়া দশমীর দিন প্রতিমা বির্ষজনের মধ্যদিয়ে শারদীয় দুর্গোৎসব শেষ হবে। এবার ভৈরবে মাত্র ১৮টি পূজামন্ডপে শারদীয় দূর্গা পূজার আয়োজন করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »