মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন আমেরিকায় করোনায় অনেক মানুষের মৃত্যু সম্মানের বিষয়

অনলাইন ডেক্স: আমেরিকায় করোনায় সংক্রমিত হয়ে প্রায় ৯২ হাজার মানুষের মৃত্যু মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন এটি সম্মানের বিষয় বলে তিনি মনে করেন। আমেরিকা দেশ হিসেবে বড়, তাই বেশি টেস্ট করতে সক্ষম হয়েছে। এ কারণে বেশি মানুষের মৃত্যু কোনো খারাপ ঘটনা নয়।

গতকাল ১৯ মে মঙ্গলবার হোয়াইট হাউসে আমেরিকান সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। একই দিনে ডোনাল্ড ট্রাম্প ম্যালেরিয়ার ওষুধ হাইড্রক্সিক্লোরোকুইনের পক্ষে আবারও কথা বলেছেন। তিনি আরো বলেন, অনেকের সঙ্গে এ নিয়ে কথা বলেছেন। এটা গ্রহণ করা ব্যক্তির ইচ্ছা বলে তিনি জানান। এর আগে ট্রাম্প বলেছিলেন, তিনি নিজেও ওষুধটি নিয়মিত খাচ্ছেন। যদিও সেন্টার ফর ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশনের (সিডিসি) গত মাসেই জানিয়েছে, হাইড্রক্সিক্লোরোকুইন কোভিড-১৯-এর চিকিৎসার জন্য নিরাপদ নয়। এটা ব্যবহারের অনুমোদনও দেয়নি সি.ডি.সি।
এদিকে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় আমেরিকায় ৩০ হাজার থেকে ১ লাখ কনটাক্ট ট্রেসার নিয়োগ দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সিডিসির প্রধান রবার্ট রেডফিল্ড।

গতকাল ১৯ মে রবার্ট রেডফিল্ড বলেছেন, আমেরিকা খুলে দেওয়ার প্রস্তুতি নিতে দেশের স্বাস্থ্য অবকাঠামোতে আরও অর্থ বিনিয়োগ করতে হবে। এ ছাড়া অব্যাহত করোনা সংক্রমণ এড়ানোর জন্য দেশজুড়ে কনটাক্ট ট্রেসিং বাড়াতে হবে। ২০২০ সালের গত ফেব্রুয়ারি মাসের শেষ থেকে এপ্রিল পর্যন্ত পরিস্থিতি অনেক নাজুক ছিল। আন্ত কমিউনিটি সংক্রমণ চরম আকার ধারণ করেছিল। তবে বর্তমানে তা অনেকটাই সাবাভিকে নেমে এসেছে।

রবার্ট রেডফিল্ড আরো বলেন, সিডিসি রাজ্য সরকারের সঙ্গে নার্সিং হোম, গৃহহীন, মাংস প্রক্রিয়াজাতকরণসহ অন্যান্য ক্ষেত্রে সংক্রমণ কীভাবে নিয়ন্ত্রণ করা যায়, এ নিয়ে কাজ করছে। হোয়াইট হাউসের নির্দেশনা অনুযায়ী রাজ্যগুলো খুলে দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে পর্যাপ্ত টেস্টিং সুবিধা ও কনটাক্ট ট্রেসিং জোরালো করার ওপর তিনি গুরুত্ব আরোপ করেছেন।

তিনি বলেন, সারা দেশে কনটাক্ট ট্রেসিংয়ে সিডিসি ৩০ হাজার থেকে ১ লাখ পর্যন্ত জনবল বৃদ্ধির চেষ্টা করছে। রাজ্য ও নগরীর স্বাস্থ্য বিভাগের সঙ্গে সমন্বয় করে এসব কনটাক্ট ট্রেসার কাজ করবে। সংক্রমণ হওয়া বা সম্ভাব্য সংক্রমিত মানুষদের চিহ্নিত করতে থাকবে।

এ প্রক্রিয়া জোরালো রাখার মধ্য দিয়ে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে রাখতে হবে। আসছে অক্টোবরের আগেই এসবের পূর্ণ প্রস্তুতি থাকতে হবে। অক্টোবরের পর শীত মৌসুমের আগমনের সঙ্গে সঙ্গে ফ্লুসহ মৌসুমি রোগ এবং কোভিড-১৯-এর সমন্বিত সংক্রমণ নিয়ে চরম উৎকণ্ঠা বিরাজ করছে। এর আগেই সর্বত্র প্রস্তুতি চূড়ান্ত করার পরামর্শ দিয়েছেন সিডিসির প্রধান।

আগামী ২৫ মে আমেরিকার মেমোরিয়াল ডে। সাবেক যোদ্ধাদের সম্মান জানিয়ে দিনটিতে শোভাযাত্রা করা মেমোরিয়াল ডের আমেরিকান ঐতিহ্য। শহর ও নগরে বছরের এ দিনটিতে জমকালো সব অনুষ্ঠান হয়। এবার অধিকাংশ এলাকায় নিয়ন্ত্রিতভাবে দিবসটি পালিত হবে। নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো বলেছেন, এবারে ১০ জন বা তার কম লোকজন নিয়ে সাবেক মার্কিন যোদ্ধাদের সম্মান জানানোর অনুষ্ঠানের অনুমতি দেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »