মৌলভীবাজারের বড়লেখায় ৩ চিকিৎসকের করোনা পজিটিভ, হাসপাতালের কার্যক্রম বন্ধ

মৌলভীবাজার জেলা প্রতিনিধি:
মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তিন চিকিৎসকের করোনা শনাক্ত হওয়ায় পাঁচ দিনের জন্য হাসপাতালটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আজ ২২মে শুক্রবার থেকে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত হাসপাতালটি বন্ধ থাকবে। তবে এ সময় সীমিত পরিসরে জরুরি বিভাগের কার্যক্রম চলবে।
হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ১৭ মে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক ওয়ার্ড বয়ের করোনা শনাক্ত হয়। এরপর হাসপাতালের চিকিৎসকসহ ৩৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। বৃহস্পতিবার রাতে নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন আসে। এতে হাসপাতালের তিনজন চিকিৎসকের করোনা শনাক্ত হয়। তাঁদের কারও করোনার কোনো লক্ষণ নেই।

মৌলভীবাজারের বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে তিন চিকিৎসকের করোনা শনাক্ত হওয়ায় পাঁচ দিনের জন্য হাসপাতালটি বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে উপজেলা করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

আজ শুক্রবার থেকে আগামী মঙ্গলবার পর্যন্ত হাসপাতালটি বন্ধ থাকবে। তবে এ সময় সীমিত পরিসরে জরুরি বিভাগের কার্যক্রম চলবে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, ১৭ মে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এক ওয়ার্ড বয়ের করোনা শনাক্ত হয়। এরপর হাসপাতালের চিকিৎসকসহ ৩৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। বৃহস্পতিবার রাতে নমুনা পরীক্ষার প্রতিবেদন আসে। এতে হাসপাতালের তিনজন চিকিৎসকের করোনা শনাক্ত হয়। তাঁদের কারও করোনার কোনো লক্ষণ নেই।

বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা চিকিৎসক রতদীপ বিশ্বাস আজ ২২মে শুক্রবার জানান, ‘একজন ওয়ার্ড বয়ের করোনা ধরা পড়ায় চিকিৎসকসহ ৩৯ জনের নমুনা পাঠানো হয়েছিল। এর মধ্যে তিনজন চিকিৎসকের করোনা ধরা পড়েছে। পরে আরও ২০ জনের নমুনা পাঠানো হয়েছে। তাদের রিপোর্ট এখনো আসেনি। হাসপাতাল জীবাণুমুক্ত করার জন্য পাঁচ দিন জরুরি সেবা ছাড়া হাসপাতালের অন্যান্য সেবা বন্ধ থাকবে।

বড়লেখা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. শামীম আল ইমরান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »