শহীদ আফ্রিদির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেছেন লেগ স্পিনার দানিশ কানেরিয়া

অনলাইন খেলার খবর ডেক্স :
পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক শহীদ আফ্রিদির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেছেন দেশটির লেগ স্পিনার দানিশ কানেরিয়া
টেস্টে নিয়মিত দেখা যেত সাবেক পাকিস্তানি লেগ স্পিনার দানিশ কানেরিয়াকে। এক সময় শোয়েব আখতারের সঙ্গে জুটি বেঁধে বল করে দারুণ সফলও হয়েছেন। পাকিস্তানের টেস্ট ইতিহাসে তিনি চতুর্থ সর্বোচ্চ উইকেটশিকারি। ৬১ টেস্টে ২১৬ উইকেট।

কিন্তু কানেরিয়ার ওয়ানডে ক্যারিয়ার ছিল সম্পূর্ণ বিপরীত। পাকিস্তানের হয়ে মাত্র ১৮টি ওয়ানডে খেলেছেন। কানেরিয়ার অভিযোগ, তাঁর ওয়ানডে ক্যারিয়ার দীর্ঘ না হওয়ার জন্য দায়ী সাবেক পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি।

পাকিস্তান ক্রিকেটে কানেরিয়াকে নিয়ে বিতর্ক নতুন না। এসেক্সের ক্রিকেটার মারভিন ওয়েস্টফিল্ডকে স্পট ফিক্সিংয়ে প্ররোচিত করায় ২০১২ সালে নিষিদ্ধ হন কানেরিয়া। এরপর থেকেই নিষেধাজ্ঞা তোলার চেষ্টা করছেন ৩৯ বছর বয়সী এ লেগ স্পিনার।নির্বাসিত কানেরিয়া এত দিন পর্দার আড়ালে থাকলেও গত ডিসেম্বর থেকে শোয়েব আখতারের এক মন্তব্যের কারণে ফের আলোচনায়। শোয়েবের অভিযোগ ছিল, কানেরিয়ার ধর্মবিশ্বাসের কারণে নাকি বেশ কয়েকজন পাকিস্তানি ক্রিকেটার জাতীয় দলে তাঁকে এড়িয়ে চলতেন। কানেরিয়া এ অভিযোগে সায় দেন।

আফ্রিদির বিরুদ্ধে অভিযোগেও ধর্মবিশ্বাসের প্রসঙ্গ টেনেছেন কানেরিয়া। হিন্দু ধর্মাবলম্বী হওয়ায় নাকি সাদা বলের ক্রিকেটে কানেরিয়ার সুযোগ মিলত না। সম্প্রতি তিনি পিটিআইকে বলেছেন, ‘সে (আফ্রিদি) সব সময় আমার বিপক্ষে ছিল। ঘরোয়া ক্রিকেট হোক আর ওয়ানডে, যদি একজন ব্যক্তি আমার বিরুদ্ধে থেকে থাকে সেটা আফ্রিদি। আপনি এমন অবস্থার মধ্য দিয়ে গেলে বুঝতে পারবেন, ধর্ম ছাড়া এমন আচরণের অন্য কোন কারণ হতে পারে না।’

কানেরিয়া ও আফ্রিদি ঘরোয়া ক্রিকেটে হাবিব ব্যাংক লিমিটেডের হয়ে খেলতেন। আফ্রিদি ছিলেন হাবিব ব্যাংকের নেতৃত্বে। জাতীয় দল কিংবা ঘরোয়া ক্রিকেট, অধিনায়ক হিসেবে আফ্রিদি সবসময় তাঁর সতীর্থদের সাহায্য করতেন। কিন্তু কানেরিয়ার বেলায় ব্যতিক্রম। দুজনই আবার ছিলেন লেগ স্পিনার। টিম ম্যানেজমেন্ট আবার একই দলে দুই লেগ স্পিনার খেলাতে চাইতেন না। সেজন্যই হয়তো ২০৬টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেললেও কানেরিয়ার লিস্ট ‘এ’ ম্যাচ সংখ্যা মাত্র ১৬৭টি।

কানেরিয়া এ নিয়ে বলেন, ‘আমিও লেগ স্পিনার ছিলাম। সেও লেগ স্পিনার ছিল। এটাও আরেকটা কারণ ছিল। সে ছিল বড় তারকা। বুঝতাম না কেন আমার সঙ্গে এমন ব্যবহার করা হতো। ওরা বলত এক দলে দুই লেগ স্পিনার খেলানো যাবে না। সীমিত ওভারের ক্রিকেট আমার ফিল্ডিং নাকি খারাপ। পাকিস্তান দলে কে এতো ভালো ফিল্ডার ছিল বলুন তো।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »