সরকারী কর্মকর্তা হয়ে নিজ দায়িত্বের পাশাপাশি একাধিক মানবিক উন্নয়নমূলক কাজে বিশেষ অবধান রাখায় পুলিশ সুপার আপেল মাহমুদ কে প্রয়াস অ্যাওয়ার্ড-২০২০প্রদান

স্টাফ রিপোর্টার :

সরকারী কর্মকর্তা হয়ে নিজ দায়িত্বের পাশাপাশি একাধিক মানবীক উন্নয়নমূলক কাজে বিশেষ অবধান রাখায় চট্রগ্রাম ট্যুরিষ্ট পুলিশ সুপার আপেল মাহমুদ কে প্রয়াস অ্যাওয়ার্ড-২০২০ প্রদান করেন।

সংবর্ধিত অতিথির পরিচিতি। মোঃ আপেল মাহমুদ পুলিশ সুপার চট্রগ্রাম ট্যুরিষ্ট পুলিশ সুপার, পিতা-বীর মুক্তিযোদ্ধা ছিদ্দিকুর রহমান সেন, নিজ বাড়ী কিশোরগঞ্জ জেলার বন্দর নগরী ভৈরব পৌর শহরের ভৈরবপুর উত্তরপাড়া জমির উদ্দিন মুন্সির বাড়ীর সমান্ত মুসলিম পরিবারের সন্তান। ওতিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১ম শ্রেণিতে রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগ থেকে অর্নাস সহ মার্ষ্টাস পাস করেন। তিনি ২৪ তম বিসিএস এর একজন চৌকস সৎ স্বনামধন্য পুলিশ সুপার। বর্তমানে ট্যুরিষ্ট পুলিশ চট্টগ্রাম রিজিয়নের দায়িত্বে¡ আছেন। আপেল মাহমুদ সেন বিভিন্ন সামাজিক ও মানবিক কর্মকান্ডের সাথে জড়িত। তিনি একজন সরকারী কর্মকর্তা হয়ে নিজ দায়িত্বের পাশাপাশি একাধিক মানব উন্নয়নমূলক কাজ করে যাচ্ছেন। তিনি করোনাকালীন সময়ে নিজ উদ্যোগে চট্টগ্রামে ৩,০০০ (তিন হাজার) রিক্সা চালকের মাঝে ত্রাণ বিতরণসহ, ঘরবন্দী এবং নিম্ন আয়ের পরিবারকে আর্থিক সহযোগিতাসহ বিভিন্ন সেবার কার্যক্রম করেছেন। তিনি মুক্তিযোদ্ধাদের পরিবারের ও সন্তানদের উন্নয়নে, মাদক বিরোধী কার্যক্রম, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে ও জঙ্গি দমনে সক্রিয় ভূমিকা পালন করে বাংলাদেশ পুলিশ বিভাগ থেকে পর পর তিনবার আইজিপি ব্যাচ পদক লাভ করেন। শুধু তাই নয় ট্যুরিষ্ট এলাকার পর্যকটদের সমস্যা সমাধানে ভূয়সী ভূমিকা পালন করেন। যার জন্য ট্যুরিষ্ট পুলিশ বিভাগ থেকে শ্রেষ্ঠ পুলিশ সুপার পদক লাভ করেন। আপেল মাহমুদ গরীব ছাত্রদের পড়াশোনায় সহযোগিতা, খেলাধুলায় আগ্রহ বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন সংগঠনের সাথে জড়িত হয়ে কাজ করে যাচ্ছেন।
তিনি ভৈরব মুক্তিযোদ্ধা সন্তান পরিষদ, মুক্তিযােদ্ধা যুব কমান্ড সহ একাধিক সামাজিক সংগঠনের সম্মানিত উপদেষ্টা
হিসেবে কাজ করে সামাজিক ও মানবিক উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডে প্রশংসামূলক ভূমিকা রেখে যাচ্ছেন । তিনি দুই কন্যা ও এক ছেলে সন্তানের জনক। উল্লেখ্য, আপেল মাহমুদ বঙ্গবন্ধুর আর্দশে অনুপ্রাণিত একজন স্বনামধন্য লেখক। ইতিমধ্যে বঙ্গবন্ধুর জীবনীর উপর উনার লেখা একাধিক কলাম বিভিন্ন জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে।
এব্যাপারে আপেল মাহমুদ বলেন, করোনা কালীন সময়ে সুবিধা বঞ্চিত কিছু মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সুযোগ হয়েছিল । আজকের চট্টগ্রাম সুনামধন্য সামাজিক সংগঠন প্রয়াস এর সংবর্ধনা আমাকে আরো বেশি করে মানুষের জন্য কাজ করার উৎসাহ যোগাবে ইনশাল্লাহ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »