হাত-পা বাধা ভাসমান অবস্থায় অজ্ঞাত যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে ভৈরব নৌ থানা পুলিশ

শামীম আহমেদ:
কিশোরগঞ্জের ভৈরবের পৌর এলাকার পঞ্চবটি শ্মশানঘাট এলাকা থেকে অজ্ঞাতনামা (২৬) যুবকের হাত-পা বাধা নদীতে ভাসমান অবস্থায় লাশ উদ্ধার করেছে ভৈরব নৌ থানা পুলিশ। ১৪ জুলাই মঙ্গলবার রাত ১১ টায় এলাকাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে।
মৃত যুবকের পরনে ছিল লীল রঙের ফুল হাতা চেক শার্ট ও লীল রঙের জিন্স প্যান্ট।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পঞ্চবটি শ্মশান ঘাট এলাকায় রাত ১০ টার দিকে জেলেরা হাত পা বাধা অবস্থায় এক যুবকের লাশ ভাসতে দেখে ওই এলাকার কাউন্সিলর এর মাধ্যমে ভৈরব নৌ থানার পুলিশকে সংবাদ দেন। পুলিশ রাত ১১ টার শ্মশান ঘাট এলাকার নদী থেকে মৃতদেহটি উদ্ধার করে।
এ বিষয়ে ভৈরব পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোমেনুল হক রাজু মিয়া বলেন, এলাকার স্থানীয় জেলেদের মাধ্যমে খবর পেয়ে এসে লাশ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খরব দিলে নৌ পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে যায়। তবে লাশটি পরিচিত করো মতো লাগছে না ধারণা করছেন বলেও জানান তিনি। অন্য কোন জায়গা থেকে ভেসে আসতে পারে পারে বলে তিনি জানান।
এ বিষয়ে ভৈরব নৌ থানার এস আই রাসেল আহমেদ বলেন, পঞ্চবটির এলাবাসীর মাধ্যমে খবর পেয়ে লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসি। প্রাথমিকভাবে সুরাতহাল রিপোর্ট অনুযায়ী মৃত যুবকের হাত পা বাধা অবস্থায় গলায় ধাড়ালো ছুরির আঘাতে চিহৃ পাওয়া গেছে। পরিচয় শনাক্তের জন্য কাজ করছে পুলিশ। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হবে। এ বিষয়ে থানায় একটি অজ্ঞাতনামা অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হবে বলে জানান তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Translate »